Brand Identity Typography Color Theory Simplicity Scalability Versatility Originality Memorability, Timelessness, Vector Graphics, Symmetry, Asymmetry, Negative Space, Balance, Contrast, Proportion, Alignment, Iconography, Minimalism, Geometric Shapes, Organic Shapes, Custom Fonts, Hand-drawn Elements, Abstract Design, Corporate Style, Vintage Style, Modern Style, Flat Design, 3D Design, Monogram, Emblem, Wordmark, Lettermark, Combination Mark, Mascot,

লোগো-এর ৭টি ধরণ সম্পর্কে জানুন:

১. মনোগ্রাম (অথবা লেটারমার্ক) লোগো:

মনোগ্রাম লোগোতে সাধারণত প্রতিষ্ঠানের নামের প্রথম অক্ষর বা সংক্ষিপ্ত রূপ ব্যবহার করা হয়। উদাহরণস্বরূপ, IBM, CNN, HP, HBO ইত্যাদি। এই লোগোগুলি দীর্ঘ নামের সংস্থাগুলির জন্য কার্যকর। কারণ এগুলি ব্র্যান্ডের নামকে সংক্ষিপ্ত করে সহজে মনে রাখার যোগ্য করে তোলে। যেমন, National Aeronautics and Space Administration. এর পরিবর্তে NASA বলা হয়।

২.ওয়ার্ডমার্ক লোগো:

ওয়ার্ডমার্ক লোগোতে প্রতিষ্ঠানের পুরো নামকে একটি নির্দিষ্ট ফন্ট ও স্টাইল দিয়ে উপস্থাপন করা হয়। যেমন: Visa, Google, FedEx  

৩.পিকটোরিয়াল মার্ক লোগো:

পিকটোরিয়াল মার্ক লোগোতে একটি নির্দিষ্ট ছবি বা আইকন ব্যবহার করা হয় যা প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পর্কিত। যেমন: Apple-এর আপেলের ছবি, Twitter-এর পাখি।

৪.অ্যাবস্ট্রাক্ট লোগো:

এই ধরনের লোগোতে কোনও নির্দিষ্ট ছবি বা চিহ্ন ব্যবহার করা হয় না, বরং একটি বিমূর্ত বা কল্পনাপ্রসূত চিত্র ব্যবহার করা হয়। যেমন: adidas

৫.মাসকট লোগো:

মাসকট লোগোতে একটি কার্টুন বা চিত্রিত চরিত্র ব্যবহার করা হয় যা প্রতিষ্ঠানকে প্রতিনিধিত্ব করে। যেমন: KFC-এর কর্নেল স্যান্ডার্স, Michelin-এর বাইবেনডাম (টায়ার ম্যান)।

৬.কম্বিনেশন মার্ক:

এই ধরনের লোগোতে টেক্সট এবং ছবি একসাথে কম্বাইন করে ব্যবহার করা হয়। যেমন: Burger King-এর লোগো, Lacoste-এর লোগো।

৭. এমব্লেম লোগো:

এমব্লেম লোগোতে টেক্সট ও চিত্র একসাথে একটি সিল বা ব্যাজের মত দেখতে হয়। যেমন: Starbucks-এর লোগো, Harley-Davidson-এর লোগো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *